বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:১০ পূর্বাহ্ন

ইতালিতে সিজনাল ও নন-সিজনাল কর্মী নিয়োগ

ডেস্ক রিপোর্টঃ
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ৩১
ইতালির ভিসার ব্যাপারে সতর্কতা জারী

সম্প্রতি ইতালি সরকার বাংলাদেশ হতে সিজনাল ও নন-সিজনাল কর্মী নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে। গত ১২ অক্টোবর ২০২০ তারিখে ইতালি সরকার থেকে ইস্যুকৃত Flussi Decree (flow decree)-তে বেশ কিছু দেশের পাশাপাশি বাংলাদেশের নাম অনুমোদিত দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়। এতে করে বাংলাদেশের কর্মীদের জন্য ইতালিতে যাওয়া এবং সেখানে কাজ করার সুযোগ তৈরি হয়েছে। দেশটিতে বাংলাদেশি কর্মী নিয়োগ বিষয়ে বুধবার ( ১৮ নভেম্বর) সচেতনতামূলক একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ইতালি সরকার সম্প্রতি বাংলাদেশ থেকে মৌসুমি ও অমৌসুমি কর্মী নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে। গত ১২ অক্টোবর ইতালি সরকার বেশ কিছু দেশের পাশাপাশি বাংলাদেশের নাম অনুমোদিত দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে। ফলে বাংলাদেশের কর্মীদের জন্য ইতালিতে যাওয়া এবং সেখানে কাজ করার সুযোগ তৈরি হয়েছে।

ইতোমধ্যে বিভিন্ন সূত্রে জানা যায় যে, Flussi Decree-এর আওতায় ইতালি যেতে আগ্রহী বাংলাদেশিদের প্রলোভিত করতে বিভিন্ন দালাল চক্র সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তাই সংশ্লিষ্ট সবার অবগতির জন্য তথ্যসমূহ জানানো হচ্ছে।

ইতালিতে নিয়োগকারী/মালিক তার জন্য নির্ধারিত SPID ইমেইল থেকে তিনি যাকে নিয়োগ দিতে চান তার নাম, পাসপোর্ট নম্বর উল্লেখ করে ইতালির স্থানীয় ডিসি অফিসে অনাপত্তিপত্রের জন্য আবেদন করতে হবে।

আরো দেখুনঃ আকর্ষণীয় বেতনে ওমানে চাকরির সুযোগ

নিয়োগকারী/মালিকের আয়সহ অন্যান্য বিষয় বিবেচনা করে অনাপত্তিপত্র দেওয়া হলে এ অনাপত্তিপত্র তিনি বাংলাদেশে ব্যক্তির কাছে পাঠাবেন।

ব্যক্তি উক্ত অনাপত্তি পত্রসহ ইতালি দূতাবাসে ভিসার জন্য আবেদন করবেন।

ভিসা নিয়ে ইতালিতে এসে তিনি নিয়োগকারী/মালিকের সঙ্গে সে দেশে ডিসি অফিসে গিয়ে চাকরির চুক্তিপত্র সাক্ষর করবেন।

আরো পড়ুনঃ রহস্যময় ওমানের সুলতান 

এ প্রক্রিয়ায় আবেদন দাখিলের সময় সরকার নির্ধারিত রেভিনিউ স্ট্যাম্প বাবদ ১৬ ইউরো ফি পরিশোধ করতে হবে। যারা আবেদন দাখিলের জন্য সংশ্লিষ্ট হেল্প ডেস্কের সহায়তা নেবেন তাদের হেল্প ডেস্কের সার্ভিস চার্জ বাবদ একটি ফি পরিশোধ করতে হতে পারে, যা ক্ষেত্র বিশেষে ৫০-১০০ ইউরো পর্যন্ত হতে পারে। আবেদন দাখিলের ক্ষেত্রে এছাড়া অন্য কোনও খরচ নেই।

আরো পড়ুনঃ ইতালি যেতে আবেদন করবেন যেভাবে

৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রাপ্ত আবেদনসমূহ বাছাই করে প্রত্যেক যোগ্য আবেদনকারীর অনুকূলে আলাদা আলাদা অনাপত্তিপত্র (Nulla Osta) ইস্যু করা হবে। Nulla Osta পাওয়ার পর নির্ধারিত ভিসা ফি পরিশোধ করে নিজ নিজ দেশে অবস্থিত ইতালিয়ান দূতাবাসে ভিসার আবেদন জমা করতে হবে।

এমতাবস্থায়, ইতালিতে কর্মী নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়ে দালাল বা মধ্যসত্বভোগীদের ভুয়া প্রলোভনে পড়ে কোনও অবৈধ বা অনিয়মতান্ত্রিক আর্থিক লেনদেন না করার বিষয়ে বিদেশ গমনেচ্ছু কর্মীদের ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সতর্ক করা হলো।

আরো দেখুনঃ

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Technical Support By NooR IT
error: Content is protected !!