বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:৪২ পূর্বাহ্ন

ওমানে পলিব্যাগ ব্যবহারে ২ হাজার রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত: বুধবার, ১১ নভেম্বর, ২০২০
ওমানে পলিব্যাগ ব্যবহারে ২ হাজার রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা

ওমানে আগামী বছরের জানুয়ারি থেকে প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করবে দেশটির পরিবেশ কর্তৃপক্ষ। এই আইন লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে ১০০ ওমানি রিয়াল থেকে দুই হাজার ওমানি রিয়াল জরিমানা গুনতে হবে।

পুনরায় আবার সেই ব্যক্তি একই নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করলে পরিবেশ সংরক্ষণ ও দূষণ নিয়ন্ত্রণ আইনে আরও কঠোর জরিমানা আরোপ করা হবে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে পরিবেশ কর্তৃপক্ষ। 

আরো দেখুনঃ ওমানের দুর্নীতিবাজ মোজাম্মেল

 

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, “প্লাস্টিকের শপিং ব্যাগের ব্যবহার নিষিদ্ধ করার বিষয়ে মন্ত্রীপরিষদের সিদ্ধান্ত হয়েছে। মানব, জীবজন্তু এবং বন্য-জীবনের নিরাপত্তা এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষার লক্ষ্যে প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহারকে সীমাবদ্ধ করা হয়েছে।

কর্তৃপক্ষ আরও জানিয়েছে, “কেমিক্যাল বিভাগ দ্বারা পরিচালিত একটি গবেষণায় দেখা গেছে, প্লাস্টিকের ব্যাগগুলি পলিথিন দিয়ে তৈরি যা পচে না এবং ক্ষতিকারক পদার্থ। যা থেকে বিভিন্ন ধরনের রোগ ছড়ায়। যে প্লাস্টিকটি দুই মিনিটের মধ্যে তৈরি হয় এবং মাত্র ২০ মিনিট ব্যবহার করা হয়।

ওমানে সাদ্দাতের বেহেস্ত দেখুনঃ 

সেই প্লাস্টিক প্রকৃতির পচে যেতে ৪০০ বছর লাগে। এই প্লাস্টিক প্রায় 8 শতাংশ মাটির নিচে চলে যায়। বাকী অংশ বাতাসে, গাছ, সৈকত, অন্যান্য খোলা জায়গা এবং সমুদ্র তীরে পরে থাকে। যা প্রাণীসহ সকলের জন্য ক্ষতিকর।

 

ওমানে করোনা আইন লঙ্ঘনে ১২ প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা

ওমানে পেশাগত সুরক্ষা নিশ্চিত না করা এবং সুপ্রিম কমিটির আইন লঙ্ঘনের অপরাধে ১২ টি প্রতিষ্ঠানকে বন্ধ ঘোষণা করেছেন দেশটির পাবলিক প্রসিকিউশন। গত ২৩ শে মার্চ থেকে ৩০ শে অক্টোবর পর্যন্ত মোট ৫১৬ টি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে ওমানের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রতিনিধিরা।

No description available.

এর মধ্যে ১৪০ টি প্রতিষ্ঠান করোনা সর্তকতা অবলম্বন করে সঠিক নিয়মে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছে। তবে ৬৩ টি প্রতিষ্ঠান করোনা নিষেধাজ্ঞা সঠিকভাবে মেনে চলেনি এমনই চিত্র উঠে এসেছে রিপোর্টে।

আরো দেখুনঃ ওমানের আউটপাশ ঘোষণা

সুপ্রিম কমিটির নির্দেশনার ভিত্তিতে এ বছরের মে মাসে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি তদন্ত দল গঠন করা হয়। এই তদন্ত দল বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন কালে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নির্দেশিকা মেনে চলছে কিনা তা নিশ্চিত করাসহ কোনো প্রতিষ্ঠান নিষেধাজ্ঞা অমান্য করছে কিনা সেই বিষয়ে কঠোর নজরদারি করছে বলে জানিয়েছে দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়। মহামারী সংক্রান্ত এই দলটি সংক্রামিত রোগীদের ডেটা সংগ্রহ করেছে এবং সংক্রমণের উৎস নিয়েও তদন্ত করেছে।

 

আরো দেখুনঃ 

 

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Technical Support By NooR IT
error: Content is protected !!