শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:৫১ পূর্বাহ্ন

ওমানে শ্রমিক নিয়োগে দুনীতির অভিযোগে মালিকের জেল

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১০ নভেম্বর, ২০২০
ওমানে আইন লঙ্ঘনে ৪২ জনের ৯ জনই বাংলাদেশী নাগরিক

শ্রমিক নিয়োগে দুনীতির অভিযোগে এক প্রতিষ্ঠানের মালিককে জেল ও জরিমানা করেছে ওমানের ভ্রাম্যমাণ আদালত। দেশটির রয়্যাল ডিক্রিতে জারি করা গ্রাহক সুরক্ষা আইন লঙ্ঘনের দায়ে উক্ত প্রতিষ্ঠানকে আর্থিক জরিমানা ও মালিককে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কনজিউমার প্রোটেকশন অথরিটি (সিপিএ)। 

সিপিএ জানিয়েছে, “উক্ত প্রতিষ্ঠান তাদের নিজস্ব প্রতিষ্ঠানে শ্রমিক নিয়োগে দুনীতির আশ্রয় নিয়েছিলো। এছাড়াও সেই অফিসের বিরুদ্ধে বিপুল সংখ্যক শ্রমিক অভিযোগ করেছিলো। শ্রমিকরা জানিয়েছেন, যে তারা অফিসের সাথে যে চুক্তি করেছিলো, অফিস তাদের সাথে চুক্তি লঙ্ঘন করেছে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত সেই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে জেল জরিমানার আদেশ দেন।” 

আরো পড়ুনঃ ওমানের আউটপাশ ঘোষণা

জানাগেছে, দেশটির প্রশাসন ইতিপূর্বে এই ধরনের কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে বেশ জোরালে ভাবে ব্যবস্থা নিলেও অভিযুক্ত অফিস সেভাবে সাড়া দেয়নি। পাবলিক প্রসিকিউশন শ্রমিকদের অভিযোগগুলি উপযুক্ত আদালতের কাছে উপস্থাপন করলে আদালত উপযুক্ত আইন অনুসারে ও শ্রমিকদের অভিযোগের সত্যতার ভিত্তিতে সেই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে এই আদেশ প্রদান করেন।

ওমানে সুপ্রিম কমিটির নির্দেশনা লঙ্ঘনের দায়ে অভিযুক্তদের জেল জরিমানা

ওমানে আজও দেশটির সুপ্রিম কমিটির নির্দেশনা লঙ্ঘনের চারজন অপরাধীর বিরুদ্ধে রায় প্রদান করেছেন দেশটির আদালত। ওমানের বুরাইমির একটি প্রাথমিক আদালত গত ৪ নভেম্বর চারজন অপরাধীকে সুপ্রিম কমিটির নির্দেশনা লঙ্ঘনের দায়ে এক মাসের কারাদণ্ড এবং একজন প্রবাসীকে ওমান থেকে ভিসা বাতিল করে দেশে চলে যাওয়ার রায় দিয়েছেন। 

আরও পড়ুনঃ ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসীরা পাবেন ২০০ কোটি টাকার ঋণ

এদিকে ওমানের দক্ষিণ আল বাতিনা প্রশাসনের একটি প্রাথমিক আদালত দুজন অপরাধীকে নির্দেশনা লঙ্ঘনের দায়ে চার মাসের কারাদণ্ড ও ৩০০ ওমানি রিয়াল জরিমানা করেছে। এছাড়াও একজন প্রবাসীকে ওমান থেকে ভিসা বাতিল করে দেশে পাঠিয়ে দেওয়ার রায় দিয়েছেন। 

আরো পড়ুনঃ মানব সেবার আড়ালে ওমানে কোটি টাকার জালিয়াতি 

এখন পর্যন্ত দেশটির দক্ষিণ আল বাতিনা, আশ শারকিয়াহ, বুরাইমি, ওস্থা ও ধাহিরাহ অঞ্চলে এই মাসে সুপ্রিম কমিটির সিদ্ধান্ত লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে মোট ১৯ টি রায় হয়েছে। পাবলিক প্রসিকিউশন দশ জন অভিযুক্তকে নিয়ে তদন্ত শুরু করেছিল যারা সুপ্রিম কমিটির নিয়ম না মেনে বাহিরে জমায়েত করেছে। তাদেরকে উপযুক্ত আদালতে প্রেরণ করা হয়েছিল।

 

এতে অভিযুক্তদের চার মাসের কারাদণ্ড এবং প্রবাসীদের ওমান থেকে ভিসা বাতিল করে দেশে পাঠিয়ে দেওয়া সহ এক হাজার ওমানি রিয়ালের জরিমানা করেছে। এছাড়াও উত্তর আশ শারকিয়া পুলিশ সদর দফতর অনৈতিক কার্যকলাপের জন্য তিন প্রবাসী ও একই জাতীয়তার এক মহিলাকে গ্রেপ্তার করে। তবে তারা কোন দেশের নাগরিক তা উল্লেখ করেনি পুলিশ। 

 

আরো দেখুনঃ

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Technical Support By NooR IT
error: Content is protected !!