শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৩৬ পূর্বাহ্ন

মাস্কাটের টেইলারিং দোকানে যেসব নিয়ম না মানলে কঠোর ব্যবস্থা

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৯ জুন, ২০২০
মাস্কাটের টেইলারিং দোকানে যেসব নিয়ম না মানলে কঠোর ব্যবস্থা

মাস্কাটের টেইলারিং দোকানে যেসব নিয়ম না মানলে কঠোর ব্যবস্থা নিবে মাস্কাট সিটি কর্পোরেশন। সোমবার মাস্কাট সিটি কর্পোরেশন তাদের অনলাইনে জারি করা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে, “পুরুষ ও মহিলা টেইলার্স শপ ও কারখানাগুলিতে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা কঠোরভাবে অনুসরণ করতে হবে। নিম্নের নির্দেশনা গুলো যথাযথ না মানলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়।

১, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে সমন্বয় করে কর্মীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা।

২, শ্রমিকদের সংখ্যা কমিয়ে সর্বনিম্ন শ্রমিক দিয়ে কাজ করাতে হবে এবং তাদের এক স্থান থেকে অন্য জায়গায় স্থানান্তর করা যাবেনা।

৩, দোকানে আলো বাতাসের ব্যবস্থা রাখতে হবে (সঠিক বায়ুচলাচল নিশ্চিত করা)।

৪, কমপক্ষে ৭০% অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখতে হবে।

৫, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে ঘোষিত নিরাপদ দূরত্ব (২মিটার) বজায় রেখে কাজ করা।

৬, প্রতিদিন শ্রমিক এবং কাস্টমারদের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করতে হবে এবং যাদের তাপমাত্রা ৩৭ অফসাইটের উপরে রয়েছে তাদের আলাদা রাখতে হবে।

৭, বার বার সাবান অথবা হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধৌত করতে হবে।

৮, সমস্ত কর্মীদের ব্যক্তিগত সুরক্ষামূলক সরঞ্জাম পরতে বাধ্য করুতে হবে।

৯, মাস্ক পরিধান ব্যতীত কাউকে দোকানে প্রবেশ করতে দেওয়া যাবেনা।

১০, গ্রাহকদের বিস্তারিত যোগাযোগের তথ্য রাখতে হবে, যেখানে তার আইডি, ফোন নম্বর এবং আবাসস্থল উল্লেখ থাকবে। যাতে করে কর্তৃপক্ষ দ্রুত রোগের নজরদারি এবং ট্র্যাকিং করতে পারে।

আরও পড়ুনঃ ওমান থেকে দেশে ফেরার নিবন্ধন শুরু করেছে দূতাবাস

১১, ওমান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং সুপ্রিম কমিটির সকল নির্দেশনা যথাযথ মেনে চলতে হবে।

১২, কোনো অসুস্থ ব্যক্তি/অথবা করোনার উপসর্গ রয়েছে এমন ব্যক্তিদের দোকানে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া যাবেনা।

১৩, কেবলমাত্র একজন গ্রাহক ভিতরে প্রবেশের অনুমতি পাবে, দোকানে পর্যাপ্ত জায়গা থাকলে শ্রমিক এবং গ্রাহকের মধ্যে দুই মিটার দূরত্ব রাখতে হবে।

১৪, ৬০ বছরের বেশি বয়সী এবং ১২ বছরের কম বয়সী শিশুদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করতে হবে।

১৫, যতটা সম্ভব দরজা খুলে রাখতে হবে।

আরও পড়ুনঃ ওমানে করোনায় গত চার দিনে সুস্থ তিন হাজারের বেশি

১৬, গ্রাহকদের অপেক্ষার অঞ্চল (কাস্টমার ওয়েটিং এরিয়া) বন্ধ করে দিতে হবে।

১৭, দোকান ব্যতীত অন্য জায়গায় সেলাইয়ের কাজ করা যাবেনা।

১৮, খবরের কাগজ এবং ম্যাগাজিন রাখতে হবে।

১৯, ব্যাগ হস্তান্তর করার আগে গ্রাহকদের সামনে জীবাণুনাশক স্প্রে করতে হবে।

 

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design by : NooR IT
www.ashrafalisohan.com
error: Content is protected !!