মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন

ওমান থেকে চালু হচ্ছে বাংলাদেশের ফ্লাইট

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২১ জুন, ২০২০
ওমান থেকে চালু হচ্ছে বাংলাদেশের ফ্লাইট

ওমানে করোনা পরিস্থিতিতে বেশ কিছুদিন বিমান চলাচল বন্ধ থাকার পর আবার চালু হয়েছে বিমান চলাচল। নাগরিকদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য ও যারা দেশটিতে আটকা পড়েছে তাদের নিজ দেশে ফেরত দিতে এই বিশেষ ফ্লাইটগুলো চলাচল শুরু করে। গত কয়েক সপ্তাহে মাস্কাট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও সালালাহ বিমানবন্দর থেকে কয়েক হাজার যাত্রী নিজ দেশে ফেরত গেছেন। যাদের বেশিরভাগই ভ্রমণ ভিসা বা এক্সপ্রেস ভিসায় ছিল। এছাড়াও যারা আন্তর্জাতিক গেটওয়ে বন্ধ থাকার কারণে দেশটিতে আটকা পড়েছিল তারাও নিজ দেশে ফেরত গিয়েছেন। এদের মধ্যে বেশিরভাগই চিকিৎসার জন্য ওমানে এসেছিলেন, গর্ভবতী মহিলা ও জরুরি কাজে দেশটিতে এসে আটকা পড়েছিলো বলে ওমান অবজারভারের খবরে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ
ইতিমধ্যে ওমানে আটকেপড়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিমান বাংলাদেশ। অন্যান্য দেশের মতো চার্টার ফ্লাইটের মাধ্যমে ওমান থেকে আটকেপড়া প্রবাসীদের দেশে ফেরত আসার সুযোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করছে বলে জানাগেছে।তবে সেক্ষেত্রে স্থানীয় বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে অনুমতি মিললেই যেকোনো সময় ওমান থেকে বিশেষ ফ্লাইট শুরু করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। বিশ্বস্ত সুত্র জানাগেছে, ইতিমধ্যেই কমিউনিটি নেতাদের সাথে বৈঠক করেছে দূতাবাস এবং যারা খুবই সমস্যায় আছে, এ ধরনের প্রবাসীদের তালিকা চাওয়া হয়েছে দূতাবাসের পক্ষথেকে।

ভারত
প্রায় ১৫ হাজার ভারতীয় এখন পর্যন্ত বিভিন্ন ফ্লাইট ও চার্টার ফ্লাইটে করে নিজ দেশে ফেরত গিয়েছে। দূতাবাসের একটি সূত্র জানিয়েছে, “ভান্দে ভারত পরিষেবায় গত ৮ মে থেকে ওমানে আটকেপড়া প্রবাসীদের নিজ দেশে ফেরত নিচ্ছে ভারত সরকার।

পাকিস্তান
মাস্কাটে পাকিস্তানের দূতাবাস জানিয়েছে, ১৮ ই জুন পাকিস্তানের তিনটি বিমান চলাচল করে। সেখানে ৫৩০জন পাকিস্তানি নাগরিক নিজ দেশে ফেরত গিয়েছেন। গত ১৮ ই জুন ইসলামাবাদ, করাচি ও মুলতানের উদ্দেশ্যে তিনটি ফ্লাইট পরিচালনা করে পাকিস্তান।

ফিলিপাইন
ওমানে গতকাল শনিবার (২০-জুন) প্রথম ফ্লাইট পরিচালনা করেছে ফিলিপাইন। আগামী দিনগুলোতে ওমানে আটকেপড়া ফিলিপাইন নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে নিতে বেশ কয়েকটি ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা রয়েছে ফিলিপাইন সরকারের।

জার্মানি
জার্মান দূতাবাস বিমানবন্দর বন্ধের কারণে আটকা পড়ে থাকা এবং দেশে ফিরে যেতে চাইছে এমন জার্মান নাগরিক ও ইউরোপের অন্যান্য দেশের নাগরিকদের সহায়তা করার জন্য ৫ জুলাই একটি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা করছে।

শ্রীলংকা
ওমানে শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রদূত ওএল আমির আজওয়াদ বলেছেন, কূটনৈতিক মিশনের শিগগিরই একটি ফ্লাইটের পরিকল্পনা রয়েছে। মিশন অনুসারে প্রয়োজনে আরও বেশি ফ্লাইট পরিচালনা করবে।

নেপাল
নেপালের কূটনীতিক মিশন দুটি চার্টার ফ্লাইট পরিচালনা করেছিল, এর মধ্যে দ্বিতীয়টি ১৮ জুন ১৪ জন যাত্রী নিয়ে নিজ দেশে ফেরত গিয়েছে। প্রথমটি ছিল ১৫ ই জুন, এতে যাত্রী ছিলও ১৬ জন।

আরও পড়ুনঃ মাত্র এক টাকার ওষুধেই সুস্থ হচ্ছে করোনা রোগী!

সিঙ্গাপুর
মাস্কাটে অবস্থিত সিঙ্গাপুর কনস্যুলেট এখনও অবধি কোনও চার্টার ফ্লাইট পরিচালনা করেননি। তবে শীঘ্রই তারা নতুন সিদ্ধান্ত জানাবে।

চীন
চীন তার নাগরিকদের মাস্কাট থেকে গুয়াংজুতে নিয়ে যাওয়ার জন্য একটি চার্টার বিমান পরিচালনা করেছে। ২৩২ জন চীনা নাগরিক নিয়ে বিমানটি ৩১ ই মে মাস্কট ছেড়ে যায়। একজন প্রবীণ কূটনীতিক বলেছিলেন, “আমরা এখন পর্যন্ত একটি ফ্লাইট পরিচালনা করেছি। ভবিষ্যতে প্রয়োজনে আরও ফ্লাইট পরিচালনা করবো।”

আরও দেখুনঃ প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে ভিপি নুরের লাইভ

 

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design by : NooR IT
www.ashrafalisohan.com
error: Content is protected !!