রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:১২ পূর্বাহ্ন

ওমানে আগামী ১৫ জুন পর্যন্ত বাড়লো ভিসা নবায়নের সময়

  • প্রকাশিত: বুধবার, ১০ জুন, ২০২০
ওমানে আগামী ১৫ জনু পর্যন্ত বাড়লো ভিসা নবায়নের সময়

ওমানে বসবাসরত প্রবাসী যারা বৈধ ভাবে দেশটিতে বসবাস করছেন তারা করোনাভাইরাসের কারণে দেশের বাহিরে ছিলেন বা লকডাউনের করণে ভিসা নবায়ন করতে পারেননি তারা আগামী ১৫ জনু এর মধ্যে নিজেদের ভিসা নবায়নের সুযোগ পাবেন। দেশটির রয়্যাল ওমান পুলিশ (আরওপি) তাদের অনলাইনে এই ঘোষণা জানিয়েছেন। আরওপি সূত্র জানায়, “যারা দেশে আছেন বা দেশের বাহিরে গিয়েছেন কিন্তু লকডাউনের কারণে দেশে ফিরতে পারছেন না তারা অতিদ্রুত আগামী ১৫ জনুয়ের মধ্যে অনলাইনে নিজেদের ভিসা নবায়ন করে ফেলুন। অনলাইনে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নবায়নের সময়সীমা বাড়িয়ে ১৫ জুন করা হয়েছে। করোনাভাইরাসের কারণে যার কাছে ওয়ার্ক পারমিট রয়েছে এবং দেশের বাইরে আটকা পড়েছেন তিনি অনলাইনে নবায়নের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আমরা ইতিমধ্যে সমস্ত ভিজিট এবং এক্সপ্রেস ভিসা বিনা মূল্যে ১৫ ই জুন পর্যন্ত বাড়িয়ে দিয়েছি।

 

লকডাউনে চলাকালীন ভিসার কার্যক্রম নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে আরওপি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে, লকডাউনের কারণে ভিসার স্ট্যাম্প পাওয়া যায়নি। এছাড়াও লকডাউনে এই কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া সম্ভব ছিলো না। তাই লকডাউন চলাকালীন ভিসা কার্যক্রম বন্ধ ছিলো। সূত্রটি আরও জানিয়েছে যে, যারা ভিসা পেয়েছেন তারা আবার নতুন ভিসার জন্য আবেদন করতে হবে। দেশে থাকা প্রবাসীরা এখন অনলাইনে নবায়ন করতে পারবেন যেহেতু আজকাল বেশিরভাগ পরিষেবাই ইন্টারনেটে পাওয়া যায়।”

 

বেশিরভাগ ভিসা অনলাইনে পুনঃ-নবায়ন করা যায়। যদি কারো নবায়ন না হয় তাহলে বুঝে নিতে হবে তার ভিসা পুনঃ-নবায়ন করা হবে না। এছাড়াও, একবার ভিসা শেষ হয়ে গেলে, একটি জরিমানা দিয়ে ভিসা নবায়ন করতে হবে। সাধারণত ৪০ ওমানি রিয়াল জরিমানা গুনতে হবে ভিসা নবায়নের জন্য।”

দেশটিতে বসবাসরত রেসিডেন্স কার্ডধারী (যাদের পতাকা আছে) যদি কারো পতাকার মেয়াদ শেষ হয়ে যায়, সেক্ষেত্রে তাকে ৩০০ রিয়াল এর সাথে আরও ২২ রিয়াল ৫০০ পয়সা অতিরিক্ত জরিমানা দিতে যে কয়মাস সে পতাকাবিহীন ছিলো। উল্লেখ্য: এটি কেবলমাত্র যাদের ভিসার মেয়াদ করোনার আগে শেষ হওয়ার পরেও ভিসা পুনঃ-নবায়ন করেননি তাদের জন্য।

 

ভিসা জরিমানা দুই প্রকারের। প্রথমটি হল ভিজিট ভিসা। মার্চ মাসে বিমানবন্দর বন্ধ হওয়ার আগে কারো জরিমানা থাকলে সেই জরিমানা অবশ্যই তাকে প্রদান করতে হবে। তবে মহামারীকালীন সময়ে কোনও জরিমানা প্রযোজ্য নয়। উদাহরণস্বরূপ, যারা মার্চের আগে পাঁচ মাসের জরিমানা রয়েছে কিন্তু এখন ভ্রমণ করতে চান, তাকে সেই পাঁচ মাসের জরিমানা দিতে হবে। দ্বিতীয় জরিমানা হলো নাগরিক স্ট্যাটাস সম্পর্কিত জরিমানা। যেটি নাগরিক মর্যাদা নবায়ন করতে চাইলে প্রদান করতে হবে। কোনও চার্জ ছাড়া প্রতিমাসে ১০ ওমানি রিয়াল জরিমানা করা হবে।

আরও পড়ুনঃ ওমান সুপ্রিম কমিটির নতুন আইন

অনলাইনের মাধ্যমে শ্রমিক ভিসা, ভিজিট ভিসা, ড্রাইভিং ভিসা, ব্যক্তিগত বাবুর্চির ভিসাও পুনঃ-নবায়ন করা যায় বলে নিশ্চিত করেছে ট্র্যাভেল এজেন্ট। এতে আরও বলা হয়েছে, যদি কেউ মনে করে যে তার অনলাইনের ভিসা ছাড়াও ফ্রেশ ভিসার প্রয়োজন, তাহলে উক্ত ব্যক্তি তার কোনো ওমানি স্টাফ কে দিয়ে ওমানের জনশক্তি মন্ত্রণালয় থেকে ভিসার ফ্রেশ কপি (প্রিন্ট কপি) সংগ্রহ করতে পারবে। সেক্ষেত্রে ওই ভিসা কপি পুনঃওমান প্রবেশের সময় এয়ারপোর্টে প্রদর্শন করলেই সে কোনো রকম বাধা ছাড়াই ওমানে প্রবেশ করতে পারবে। সুত্রঃ ওমান অবজারভার

আরও দেখুনঃ মধ্যপ্রাচ্য থেকে ২৮ হাজার প্রবাসী ফিরবেন শিগগিরই

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design by : NooR IT
www.ashrafalisohan.com
error: Content is protected !!