শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:৪২ পূর্বাহ্ন

ওমানে আক্রান্ত এবং মৃত্যু দুইটাই বাড়ছে

  • প্রকাশিত: বুধবার, ৩ জুন, ২০২০
ওমানে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যু
ফাইল ছবিঃ

ওমানে গত ২৪ঘন্টায় নতুন ৭৩৮ জন আক্রান্ত ব্যক্তি সনাক্ত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। বুধবার মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যমতে নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ৪১৪ জন প্রবাসী এবং ৩২৪ জন ওমানি নাগরিক। এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ১৩,৫৩৮ জন, সুস্থ ২,৮৪৫জন এবং মৃত্যু ৬৭ জন।

ওমান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যমতে দেশটিতে করোনায় মৃত্যুর অর্ধেক-ই মাতরাহ ও সিব অঞ্চলের। দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী এই চিত্র উঠে এসেছে। ওমান ও সারা বিশ্বের কোভিড-১৯ পরিস্থিতি সম্পর্কে আপডেট সরবরাহকারী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্যের পরিসংখ্যান অনুসারে মঙ্গলবারের হিসেব অনুযায়ী ৫৯ জন নিহতদের মধ্যে ২৫ জন মাতরাহ অঞ্চলের ও ১৭ জন সিবে অঞ্চলের নাগরিক।

গতকাল করোনা ভাইরাসে দেশটিতে নয় জন নাগরিক মারা গিয়েছিলেন। যাদের মধ্যে আটজন ছিলেন মাস্কাটের ও এক জন ছিলেন দক্ষিণ আল শারকিয়ার। মাস্কাটে মারা যাওয়া আট জনের মধ্যে চার জন ছিলেন সিব অঞ্চলের ও তিনজন ছিলেন মাতরাহ অঞ্চলের এবং বাকি একজন ছিলেন বৌশার অঞ্চলের।

দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা যাওয়া ৪৭ জন বা ৭৯.৬৬ শতাংশ মাস্কাটের নাগরিক। দক্ষিণ আল বাতিনাতে ছয় জন বা ১০.১৬ শতাংশ মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এখন পর্যন্ত ধোফার, দাহিরাহ ও উত্তর বাতিনা প্রদেশে একজন করে মৃত্যু এবং দক্ষিণ আশ-শারকিয়াহতে তিনজন মারা গিয়েছেন। ওমানে গতকাল মৃত্যুর সংখ্যা ৫৯ ছিলো, আজ তা বেড়ে দাড়িয়েছে ৬৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ৮জনের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে গতকাল দেশটিতে আক্রান্ত ছিলো ৫৭৬জন, এদিকে বুধবার নতুন আক্রান্ত হয়েছে ৭৩৮ জন।

আরও পড়ুনঃ বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার ঘোষণা ওমান এয়ারের

দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা আজ দাড়িয়েছে ১৩ হাজার ৫৩৮ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছে ২ হাজার ৮৪৫ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্তের ৭৫.৫৮ শতাংশ রোগী মাস্কাটের নাগরিক। মাস্কাটে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে নয় হাজার ৭৩৫ জন। এর মধ্যে ৪ হাজার ১৯৮ জন মাতরাহ অঞ্চলের। মাস্কাটের আল সিব অঞ্চলে দুই হাজার ৭৪৫ জন ও বৌশার অঞ্চলে দুই হাজার ২৩৮ জন। এছাড়াও মাস্কাটের পরে দক্ষিণ বাতিনায় ৮২৫ ও উত্তর বাতিনায় ৮৫৬ জন নাগরিক করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তের তালিকায় এর পরেই রয়েছে আল দাখিলিয়াহতে ৫৩৭ জন, দক্ষিণ শারকিয়াহতে ৩২৪ জন, আল বুরাইমিতে ১৪৮ জন, উত্তর শারকিয়াহতে ১৪৬ জন, ধোফারে ৩০ জন আল ওস্তাতে ৪২ জন ও সবচেয়ে কম আক্রান্ত হয়েছে মুসান্দামে ৬ জন (এটা গতকালের হিসেব)

 

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design by : NooR IT
www.ashrafalisohan.com
error: Content is protected !!