বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১২:২৮ অপরাহ্ন

ওমানে প্রবাসীদের করোনা ফ্রি চিকিৎসা বন্ধ

  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৫ মে, ২০২০
  • ১০১
ওমান সুপ্রিম কমিটির নতুন আইন

ওমানে মহামারী করোনার সর্বশেষ তথ্য জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী। গতকাল বৃহস্পতিবার ওমানের সুপ্রিম কমিটির এক মিটিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশটির করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সম্পর্কে মিডিয়াকে বিস্তারিত যেসব তথ্য দিয়েছেন। নিম্নে তথ্যগুলো তুলে ধরা হলো:-

১. দেশটিতে একজন ব্যক্তির দ্বারা তার পরিবারের এক সদস্যসহ ১৭ জনকে সংক্রামিত হয়েছেন।
২. একসঙ্গে ৭০ জন প্রবাসী একসাথে বসবাস করায় সকলে সংক্রামিত হয়েছে।
৩. ৩১ জন রোগী বর্তমানে আইসিইউতে রয়েছেন।
৪. ওমানে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে প্রায় তিন’শ জনকে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। যাদের সবাই করোনা পজিটিভ।
৫. ওমানে একজন ব্যক্তি আদালতের নির্দেশে ইফতারের আয়োজন করেছে।
৬. ওমানে গত সপ্তাহে প্রশাসনকে না জানিয়ে একটি বিবাহ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেখানে উপস্থিত ছিলো প্রায় ১৫০ মানুষ। যাদের থেকে প্রায় তিন’শ নাগরিক সংক্রামিত হয়েছে।
৭. ওমানের মৃত্যুর হার ০.৪ শতাংশ।
৮. ওমানে এখন পর্যন্ত করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৬১ হাজার নাগরিকের।
৯. স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সরকারের দেওয়া সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেন যাতে আমাদের আরও কড়া ব্যবস্থা নিতে না হয়।
১০. নিয়োগকর্তাদের প্রবাসী রোগীদের চিকিৎসা ব্যয় বহন করতে হবে তবে করোনা পরীক্ষা সরকার থেকে ফ্রি দেওয়া হচ্ছে।

 

১১. ব্রিগেডিয়ার সাইদ আল আসমি বলেন, ঈদ নিয়ে কথা বলাটা খুব তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে বাবা-মাদের অবশ্যই তাদের বাচ্চাদের ঈদ পার্টিতে যাওয়ার ক্ষেত্রে সর্তক থাকতে হবে। ১২. স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন: ওমানে সব ধরণের সমাবেশ নিষিদ্ধ।
১৩. ডা. সাইফ আল আব্রি বলেন: দেশে প্লাজমা থেরাপির জন্য প্লাজমা দাতাদের অভাব রয়েছে।
১৪. স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন: দেশটিতে রমজান মাসে বিভিন্ন সমাবেশ করায় তাদের জরিমানা করা হয়েছে।
১৫. আবদুল্লাহ আল সারমি বলেন, আমরা আগামী জানুয়ারি পর্যন্ত ওমানি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি স্থগিত করছি।
১৬. স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন: দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাস পরীক্ষায় ব্যয় হয়েছে ৪ মিলিয়ন ওমানি রিয়াল।
১৭. সাইফ আল আব্রি বলেন, ওমানে প্রতিদিন দুই হাজার করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। আমরা আশা করছি অতিদ্রুত এই পরীক্ষার সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে। এছাড়াও করোনাভাইরাস মোকাবেলায় আগামী ছয় মাসের চিকিৎসা প্রস্তুতি নিয়েছে ওমান সরকার।
১৮. স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন: আল ওয়াদি আল কবির ও হামরিয়ায় করোনা রোগীর সংখ্যা বেশি।
১৯. এসময় স্বাস্থ্যসেবায় কর্মরত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীসহ দেশটির পুলিশ প্রশাসন ও সশস্ত্র বাহিনীদের করোনা পরিস্থিতিকে জীবন বাজি রেখে কাজ করার জন্য কৃতজ্ঞতা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।
২০. তিনি বলেন, করোনার বর্তমান পরিস্থিতি থেকে যদি দেশ আরো নিয়ন্ত্রণে আসে তাহলে আগামী ২৭ মে থেকে ওমানের অনেক অঞ্চলে লকডাউন তুলে নেওয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ ওমান প্রবাসীরা যেভাবে প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করবেন

২১. ডা. সাইদ আল আব্রি বলেন: মাস্কাটে করোনা রোগীর সংখ্যা বেশি হওয়ার প্রধান কারণ হলো অঞ্চলটির প্রবাসী এলাকায় ভাইরাসটি দ্রুত ছড়িয়েছে। প্রবাসীদের এলাকার বিভিন্ন অ্যাপার্টমেন্টে প্রচুর মানুষ এক সাথে বসবাস করে। তাই ভাইরাসটি দ্রুত ছড়িয়েছে এই এলাকায়।
২২. এসময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন: মাস্কাটে লকডাউন তুলে নেওয়ার বিষয়ে এখনো কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি দেশটির সুপ্রিম কমিটি।
২৩. তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশের বিমানবন্দর খোলা থাকলে ওমান ছেড়ে চলে যাওয়া নাগরিকরা দেশে ফেরত আসতে পারবেন।
২৪. স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান: দেশটিতে ১৭ জন ব্যক্তির উপর প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হয়েছে যাদের মধ্যে ৫ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Technical Support By NooR IT
error: Content is protected !!