বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫:৩৮ অপরাহ্ন

ফেসবুক আইডি হ্যাক করা/ভুয়া আইডি খোলা কি অপরাধ ?

অনলাইন ডেস্ক
  • প্রকাশিত: শনিবার, ৯ মে, ২০২০
ফেসবুক আইডি হ্যাক করা/ভুয়া আইডি খোলা কি অপরাধ ?

দিনে দিনে বাংলাদেশে ফেসবুক ব্যবহারের সংখ্যা অনেক গুন বেড়ে গেছে এবং এর সাথে পাল্লা দিয়ে বেড়ে গেছে ফেসবুকের সাথে জড়িত বিভিন্ন প্রকার অপরাধসমূহ। এ সকল অপরাধসমূহের মধ্যে সব থেকে মারাত্মক অপরাধ হলো অন্যের ফেসবুক আইডি হ্যাক করা।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ নামে বাংলাদেশে একটি আইন পাস হয়েছে এবং এই আইনের ৩৪ ধারায় অন্যের আইডি হ্যাক করার শাস্তি বর্ণিত আছে। উক্ত ধারা মোতাবেক যদি কোন ব্যক্তি হ্যাকিং করেন তাহলে সেই ব্যক্তি ১৪ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হবেন অথবা এক কোটি টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। হ্যাকিং এর অপরাধ যদি ২য় বার করেন বা বারবার করেন তাহলে সেই ব্যক্তি সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন অথবা ৫ কোটি টাকা অর্থদন্ডে অথবা উভয় দন্ডে দন্ডিত হবেন। সুতরাং যারা অন্যের ফেসবুক আইডি হ্যাক করেন এবং বিভিন্ন ধরনের বিভ্রান্তিকর তথ্য প্রচার করেন তাদের এখনই সাবধান হতে হবে না হলে বড় ধরনের বিপদ হতে পারে।

আরও পড়ুনঃ ঢাকার কিশোরীকে ব্ল্যাকমেইল: গ্রেফতার হচ্ছে ওমানপ্রবাসী

বর্তমান বাংলাদেশে লক্ষ লক্ষ ফেসবুক ব্যবহারকারীর ভিতর হাজার হাজার ব্যবহারকারী ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করছেন কিন্তু বাংলাদেশের সদ্য পাস হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন অনুসারে ভুয়া অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করা এবং অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে ছদ্মবেশ ধারণ করা বা অন্য কারোর ছদ্মবেশ ধারণ করা ইত্যাদি এইসব যদি কারো ক্ষতি করার উদ্দেশ্যে হয় বা প্রতারণা করার উদ্দেশ্যে হয় তবে তা অপরাধ এবং উক্ত অপরাধের জন্য সর্বোচ্চ সাত বছরের কারাদণ্ড অথবা ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হওয়ার বিধান রয়েছে।

 

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Design by : NooR IT
www.ashrafalisohan.com
error: Content is protected !!