শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

ওমানে করোনার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড

  • প্রকাশিত: বুধবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২০
  • ২৭৯
অবশেষে টুরিস্ট ভিসাও খুলে দিলো ওমান

ওমানে মহামারী করোনার সর্বোচ্চ রেকর্ড করেছে আজ। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ১৪৩ জন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত শনাক্ত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। গত ২০ এপ্রিল একদিনে ১৪৪ জন আক্রান্ত রোগী শনাক্তের মাধ্যমে সর্বোচ্চ রেকর্ড করেছিলো। আজ ওমানে করোনার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ড গড়ল। আক্রান্তদের মধ্যে ১০১ জন প্রবাসী এবং ৪২ জন ওমানি নাগরিক। সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ২২৭৪ জন এবং মৃত্যু ১০ জন। এদিকে মোট সুস্থ হয়েছেন ৩৬৪ জন। সুত্রঃ ওমান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

এদিকে বুধবার রয়্যাল ওমান পুলিশের এক বিকৃতিতে জানিয়েছে, ওমানে কোভিড -১৯ নিয়ন্ত্রণে বুধবার সকাল ১১ টায় থেকে এই নজরদারী কঠোর করা হবে। দেশটির প্রধান প্রধান পয়েন্ট ছাড়াও বিভিন্ন পয়েন্টে আগের থেকে নজরদারি আরো কঠোর করা হয়েছে বলেও জানান ওমান রয়েল পুলিশ। তবে ওমানের অন্যান্য গভর্নর থেকে মাস্কাট ও মাতরাহ অঞ্চলে সবচেয়ে বেশি কঠোর করা হয়েছে বলেও জানান ওমান রয়েল পুলিশ।

অপরদিকে ওমান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ডা. মোহাম্মদ বিন সাইফ আল হোসনি বলেন, “ওমানে করোনাভাইরাসের কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আরও কঠোর অবস্থানে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়। কোভিড-১৯ চিকিৎসায় আরো ১৮৭ টি ইন্টেন্সিভ কেয়ার বা নিবিড় পরিচর্যা বেডের প্রয়োজন।” তিনি আরও বলেন, দেশে সংক্রমণের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য আরো ইন্টেন্সিভ কেয়ারের দরকার। রোগীর দেখাশোনা করার জন্য এখন পর্যন্ত আমাদের যে ব্যবস্থা রয়েছে তা পর্যাপ্ত, তবে সংক্রামণ রোধে আমরা আরো সর্তক থাকতে চাই। যেন দেশ অতিদ্রুত এই ভাইরাস থেকে মুক্ত হতে পারে।

আরও পড়ুনঃ ওমানের যেসব বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দিয়েছে 

ডা. মোহাম্মদ বিন সাইফ আল হোসনি বলেন, আমাদের কাজে সাহায্য করেন। তাহলে আমরা অতিদ্রুত এই ভাইরাসের মোকাবেলা করতে পারবো। হোসনি আরও বলেন, “দেশটির করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সূচকগুলো দেখে মনে হয় আমরা হয়তো খুব শীঘ্রই বিপজ্জনক অবস্থায় পৌঁছে যাবো। আর তখন আমাদের কাছে প্রতিদিন এক হাজার ৮০০ রোগীর করোনা রেকর্ড হওয়ার আশংকা করছি। প্রতিদিন আমাদের প্রায় ৫০০ টি বেডের প্রয়োজন যেখানে রোগীদের পরিচর্যা করা যাবে। এবং প্রায় ১৮৪ টি নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটের প্রয়োজন। দেশটিতে আক্রান্তের পর থেকে একক ব্যক্তির দ্বারা সংক্রমণের হার এখনও ১.২ থেকে ১.৪ এর মধ্যে রয়েছে। যার অর্থ হলো ১০ জন সংক্রমণ থেকে প্রায় ১২ থেকে ১৪ জন সংক্রমিত হতে পারে। দেশটিতে বসবাসরত সবাইকে ওমান স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মেনে চলতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

প্রবাস টাইম সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

রিলেটেড নিউজ
© 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Technical Support By NooR IT